1. admin@dailyswadhinbangladesh.com : admin :
  2. n.ganj.jasim@gmail.com : স্বাধীন বাংলাদেশ রিপোর্ট : স্বাধীন বাংলাদেশ রিপোর্ট
  3. reduanulhoque11@gmail.com : reduanulhoque :
  4. sohag42000@gmail.com : sohag42000 :
সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ১১:৪৪ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
‘দেশে অর্ধেকের বেশি নারীর বাল্যবিয়ে হয়’ বেইলি রোডে আগুনের ঘটনায় এখনো ৬ জন চিকিৎসাধীন গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা রক্ষায় পুলিশকে দায়িত্ব পালন করতে হবে: প্রধান বিচারপতি দক্ষিণ কোরিয়ায় ৭ হাজার ডাক্তারের লাইসেন্স স্থগিত ইসরায়েলি গুপ্তচরের’ মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করল ইরান গাজায় অপুষ্টি-পানিশূন্যতায় আরো ১৫ শিশুর মৃত্যু কাচ্চি ভাই রেস্টুরেন্টের ম্যানেজার ও চা চুমুকের মালিকসহ ৪ জন কারাগারে চলচ্চিত্র নির্মাণে সরকারি অনুদানে আরও স্বচ্ছতা ও পেশাদারিত্ব নিশ্চিত করা হবে : আরাফাত সীমান্ত রক্ষায় বিজিবিকে স্মার্ট প্রযুক্তিতে সজ্জিত করা হচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী না:গঞ্জে ক্ষমতার স্বাদ পায়নি আওয়ামীলীগের ত্যাগীরা

রূপগঞ্জে মাকে মাছ কাটতে দিয়ে শিশু অপহরণ ** সন্ধান দিলে মিলবে পুরস্কার

ডেস্ক রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

রূপগঞ্জে অপহরণের ৪৮ দিনেও রায়হান নামে এক শিশুর খোঁজ মিলে নি। ২০২৩ সালের ২২ ডিসেম্বর রূপগঞ্জ তারাব এলাকার বরপা আড়িয়াব এলাকা থেকে ঐ শিশুকে অপহরণ করা হয়। একই বছরের ২৬ ডিসেম্বর অপহৃতের পিতা নূর আমিন নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং ৪৩/৭৯৭।

মামলা সূত্রে জানা যায়, রূপগঞ্জ তারাব এলাকার বরপা আড়িয়াব এলাকায় মাহাবুব মিয়ার বাড়িতে ভাড়া থাকেন ভাড়াটিয় নূর আমীন। তার ৪ মাস ২০ দিন বয়সী এক ছেলে সন্তান ছিল, যার নাম রায়হান। ২০২৩ সালের ডিসেম্বর মাসে একজন অজ্ঞাত মহিলা নূর আমীনের পাশের বাড়িতে ভাড়া থাকতে আসে। সেই মহিলা নূর আমীনকে ধর্মের ভাই বলে সম্বোধন করা শুরু করে ও পুরো পরিবারে সাথে একটি সুসম্পর্ক গড়ে তোলে। এক পর্যায়ে ২০২৩ সালের ২২ ডিসেম্বর সকাল ১০ টায় সেই মহিলা নূর আমীনের বাসায় এক কেজি কাচকি মাছ নিয়ে আসে। সে নূর আমীনের স্ত্রীকে বলে তার বাসায় মাছ কাটার মত বটি নেই, তাই একটু মাছ কাটতে এসেছে। তখন নূর আমীনের স্ত্রী ওই মহিলাকে শিশু রায়হানকে দেখতে বলে নিজেই মাছ কাটতে চলে যায়। এই ফাঁকে ওই মহিলা শিশুকে নিয়ে পালিয়ে যায়।

এব্যাপারে রূপগঞ্জ থানার সহকারী পুলিশ সুপার (গ সার্কেল) আবীর হোসেন বলেন, এলাকার সিটি টিভি ফুটেজ থেকে অজ্ঞাত মহিলার ছবি সংগ্রহ করা হয়েছে। আমরা ওই মহিলাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টায় আছি। আমরা মিডিয়ার মাধ্যমে জানাতে চাই, যে শিশুর কিংবা আসামির সন্ধান দিবে তাকে ২০ হাজার টাকা পুরস্কার দেওয়া হবে।

Facebook Comments Box
এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © দৈনিক স্বাধীন বাংলাদেশ

প্রযুক্তি সহায়তায় Shakil IT Park